Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭, ৭ জুমাদিউস-সানি ১৪৪২

শিরোনাম :
বালাগঞ্জে জামালপুর ক্রীড়া সংস্থার কম্বল ও অনুদান প্রদান || আলাপুর ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন'র গৃহ উপহার || বনগাঁও প্রিমিয়ার লীগ ক্রিকেটের ফাইনাল সম্পন্ন || বালাগঞ্জে আজিজপুর প্রিমিয়ার লীগ ক্রিকেট উদ্বোধন || বালাগঞ্জে রেজওয়ান আলী কয়েছ ফাউন্ডেশন’র চাল বিতরণ || ওসমানীনগরে আজম আলী ট্রাস্ট’র ভাতা ও অনুদান বিতরণ || বালাগঞ্জে অন্ধ হাফিজ’কে ৫০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান || রাজনগরের ফতেপুরে আ.লীগ নেতা রাখাল চন্দ্র দাশের জন্মদিন পালন || শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বাধীন সরকারের টানা ১যুগ পূর্তিতে শফিক চৌধুরীর দো’আ মাহফিল || বালাগঞ্জের মাহবুবুল আলম চৌধুরীকে ব্রিটিশ অ্যাম্পায়ার মেডেল প্রদান ||

মসজিদে ”আপত্তিকর অবস্থায়” প্রেমিকাসহ ইমাম আটক

 প্রকাশিত: ২৯, নভেম্বর - ২০২০ - ০২:৫৫:৪৮ PM

কূল ডেস্ক :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মসজিদ কক্ষে তরুণীর সঙ্গে “আপত্তিকর অবস্থায়” মোহাম্মদ আলী নামে এক মসজিদের ইমামকে পাওয়া যাওয়ায় তাকে আটকের পর মুচলেখা রেখে ছেড়ে দিয়েছে এলাকাবাসী।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে বাঞ্ছারামপুর উপজেলার সলিমাবাদ ইউনিয়নের আশরাফবাদ গাউসুল আজম জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার খবর পেয়ে বাঞ্ছারামপুর থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। মোহাম্মদ আলী বাঞ্ছারামপুর উপজেলার পুরান কদমতুলী গ্রামের বাসিন্দা। 

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, হোসেনপুর গ্রামে একব্যক্তি মারা গেলে মাইকে ঘোষণা দিতে লোকজন মসজিদে গিয়ে ইমামের খোঁজ করা হয়। তাকে না পেয়ে মসজিদ ঘেঁষা ইমামের থাকা কক্ষের জানালার ফাঁক দিয়ে “আপত্তিকর অবস্থায়” ইমামকে দেখতে পায় তারা। পরে এলাকাবাসী দরজা ধাক্কাধাক্কি শুরু করলে পেছনের দরজা দিয়ে মেয়েটিকে বের করে দেয় সে। এ ঘটনায় এলাকার লোকজন আরও উত্তেজিত হয়ে উঠে। 

খবর পেয়ে বাঞ্ছারামপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে মসজিদ কমিটির সভাপতি জামাল উদ্দিন কমিটির সাথে আলোচনা করে তাৎক্ষণিকভাবে ইমামকে বরখাস্ত করেন। 

মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ আলী জানায়, মেয়েটি তার পূর্ব পরিচিত। তাকে দরজা বন্ধ করে কক্ষে নেওয়ার কথা স্বীকার করলেও তার সাথে মেলামেশা করেনি বলে দাবি করে সে। 

ইমামের ভাই আওয়াল মিয়া বলেন, “এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে আমি মসজিদে যাই। পরে ঘটনা জানতে পারি। এলাকার লোকজন মুচলেখা রেখে তাকে আমার হাতে তুলে দেন।”

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “এ খবর পেয়ে বাঞ্ছারামপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মসজিদে যায়। ততক্ষণে মেয়েটি পালিয়ে যায়। মেয়েটির তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে স্বীকার করেছে ইমাম। তবে আপত্তিকর কিছু হয়নি বলেও দাবি তার।” তবে মেয়েটির পক্ষ থেকে কোনও অভিযোগ না থাকায় ওই ইমামের বড় ভাইয়ের জিম্মায় মুচলেখা রেখে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সূত্র : ঢাকা ট্রিবিউন।

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top