Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮, ৫ রমাদান​ ১৪৪২

শিরোনাম :
বালাগঞ্জে কৃষকদের মধ্যে আউশের বীজ ও সার বিতরণ || বালাগঞ্জে করোনা এবং রমজান মাস উপলক্ষে শতাধিক পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী উপহার || বালাগঞ্জে হাবিবুর রহমান হাবিব’র ত্রাণ বিতরণ || বালাগঞ্জে মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী স্মরণে “স্মরণ সভা“ অনুষ্ঠিত || বালাগঞ্জ সরকারি কলেজে গণহত্যা দিবস পালন || শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা, যা বললেন বিশিষ্টজনেরা || বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র ৬টি ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন || পূবালী ব্যাংক বালাগঞ্জ শাখার গ্রাহকদের জন্য সু-খবর || ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন পাবে না আগের বিদ্রোহী ও তাদের সমর্থক! || বালাগঞ্জে আসছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও আমান ||

চুনারুঘাটে পুরাতন খোয়াই নদী তীরে উচ্ছেদ অভিযান

 প্রকাশিত: ২৪, ডিসেম্বর - ২০১৯ - ০১:৪৫:১২ PM

এম এস জিলানী আখনজী, চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) :: হবিগঞ্জ চুনারুঘাটে পুরাতন মরা খোয়াই নদী তীরে সরকারি ভূমি থেকে অবৈধ দখলদারদের স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে উপজেলাবাসী এ নদীটি প্রভাবশালী দখলদারদের হাত থেকে উদ্ধারের দাবিতে বিভিন্ন দপ্তরে সুপারিশসহ আন্দোলন-সংগ্রাম চালিয়ে গেলে অবশেষে জেলা প্রশাসন নদীটি অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে রেহাই দিতে উচ্ছেদের উদ্যোগ নিয়েছেন।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) বেলা ১০টায় পৌরশহরের পাকুড়িয়া, বড়াইল মৌজা সমূহের নদীর উভয় তীরে মধ্যবাজার ও বিভিন্ন স্থানে গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের অভিযান শুরু করে জেলা প্রশাসনের একটি টিম। আগামী কয়েক দিনের ভেতরে সবগুলো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

মরা খোয়াই নদী উদ্ধারে ছিলেন আরডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানাসহ চুনারুঘাট থানার এসআই মোসলিম উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ। এদিকে উচ্ছেদ অভিযানের খবর পেয়ে নিজ-নিজ উদ্যোগে নিজেদের স্থাপনাগুলো ভেঙে ফেলছেন অনেকেই। সরকারি উদ্যোগে ভাঙলে জরিমানা গুনতে হবে এ আশঙ্কায় তারা নিজ উদ্যোগেই স্থাপনা ভেঙে নিচ্ছেন।

সুত্র জানায়, নদীর পুরোনো অংশটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়লে তা দখল করে নেন স্থানীয় প্রভাবশালী বাসিন্দারা। এতে দখল-দূষণে নাব্যতা হারিয়ে রীতিমতো অস্তিত্ব হারিয়ে ফেলে পুরাতন মরা খোয়াই নদীটি। যেন যৌবন হারিয়ে নিঃস্ব। শুষ্ক মৌসুমে কৃষকরা ফসল আবাদের সময় এ নদী থেকে পেত পর্যাপ্ত পানি। ছিল দেশীয় মাছের প্রাচুর্য। উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া খোয়াই নদীর দুই পাড় অবৈধভাবে দখল ও ভরাট করে বিভিন্ন স্থাপনাসহ নির্মাণ করা হয়েছিলো দোকানপাঠ এবং বাসা বাড়ি। আরডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা বলেন, উচ্ছেদ কার্যক্রম নিয়মিত কার্যক্রমের একটি অংশ। উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের একটি দাবি পুরাতন মরা খোয়াই নদী উদ্ধার। আমরা সকলের সহযোগিতায় এ কার্যক্রমে এবার হাত দিয়েছি। আশা করছি, সকলের সহযোগিতায় এটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে পারব।

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top