Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, বৃহস্পতিবার, ০৬ অগাস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পর্ণোগ্রাফির মামলায় বালাগঞ্জের যুবক শ্রীঘরে

 প্রকাশিত: ১১, জুন - ২০২০ - ১০:০৯:২৩ PM

নিজস্ব প্রতিবেদক :: স্কুল শিক্ষিকার আপত্তিকর ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বালাগঞ্জ ইউনিয়নের কাজিপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল আহাদ ভুদন (৩০) নামের এক যুবককে শ্রীঘরে পাঠিয়েছে পুলিশ। তার পিতার নাম আব্দুর রহিম ওরফে তাজিম উল্যা। ৯জুন বোয়ালজুড় বাজারের মুদি দোকানদার আব্দুল আহাদ ভুদনকে বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে মুঠোফোন উদ্ধার ও আলামত জব্দ করা হয়।

মামলার এজাহার বিবরণ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার এক শিক্ষিকার সাথে ভুদন মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে শিক্ষিকাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক পর্যায়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে। ওই শিক্ষিকা বিয়ের জন্য তাকে চাপ দিলে সে নানা টালবাহানা করে।

এনিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ দেখা দিলে ভুদন ওই শিক্ষিকার নামে-বেনামে ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে আপত্তিকর ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভুগী ওই শিক্ষিকা বাদি হয়ে ৮ জুন জগন্নাথপুর থানায় পর্ণোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেন।

জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশ গণমাধ্যমকে জানান, ওই মেয়েটি একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে বিয়ের প্রলোভনে ওই ছেলেটি তার সাথে প্রতারণা করেছে। আমরা তার মুঠোফোন উদ্ধার করে পর্ণোগ্রাফির আলমতগুলো জব্দ করেছি।

Top