Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৮ শাওয়াল ১৪৪১

বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরে করোনা চাষের উর্বর ভুমি হাটবাজার

 প্রকাশিত: ২৩, মে - ২০২০ - ০৩:৩৭:৫৮ AM

এ এস রায়হান: সিলেটের বালাগঞ্জ ও ওসমানীনগর উপজেলায় সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে হাটে-বাজারে সর্বত্রই মানুষের বিচরণ। পাশাপাশি বাড়ছে করোনা (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যাও। সাধারণ মানুষ তোয়াক্কাই করতে চাচ্ছেনা করোনাকে। আর এ গাফিলতি থেকেই ঘটতে পারে বড় বিপর্যয়।

প্রতিদিন সকাল-বিকাল বালাগঞ্জ ও ওসমানীনগর উপজেলার বাজারসহ ইউনিয়ন পর্যায়ের হাট-বাজারগুলোতে প্রয়োজনে- অপ্রয়োজনে হাজার-হাজার মানুষ ভিড় করছে। স্বাভাবিক ভাবেই চলছে আড্ডা, প্রয়োজনীয়-প্রয়োজনীয় অনেক দোকানই খোলা রাখা হচ্ছে।

বিশেষ করে গত কয়েক দিন ধরে বালাগঞ্জ বাজারে মানুষের উপচে ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এই বাজারে বিপনী বিতানগুলোতে খুব স্বাভাবিক ভাবেই কেনাকাটার ধূম পড়েছে। বালাগঞ্জ বাজারের এমন ব্যস্ততম পরিবেশে লকডাউন বলে কিছু নেই বলে অনুমেয় হচ্ছে।হাটবাজারগুলো যেনো করোনা চাষের উর্রব ভূমিতে পরিণত হয়েছে।

উদ্ভট পরিস্থিতিতে গত কয়েক দিন যাবৎ বালাগঞ্জ ও ওসমানীনগর উপজেলায় প্রশাসনিক কোনো তৎপরতা চোখে পড়েনি। এর ফলে বাড়ছে করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি।

ওসমানীনগর উপজেলার গোয়ালা বাজার ও তাজপুর বাজারের কাঁচা বাজার ও মাছ বাজার অন্যত্র স্থানান্তর করা হলেও মানুষ সামাজিক দূরত্ব মানছে না। প্রতিদিন বাজারে অসংখ্য লোকের সমাগম ঘটছে। এছাড়া গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও দুই উপজেলায় সিএনজি অটোরিকশাসহ ছোট যানবাহনগুলো চলছে স্বাভাবিকভাবেই। সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে অবাধে ছোট যানবাহনগুলো চলাচল করছে। সাথে প্রাইভেট গাড়িগুলোও দাপিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে।

এব্যাপারে বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী দেবাংশু কুমার সিংহ ও বালাগঞ্জ থানার ওসি গাজী আতাউর রহমান বলেন, আমরা বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এবং বাজারে আগত মানুষদের বাজার বিমুখ করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করছি।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. তাহমিনা আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, এত করে বলার পরও সামাজিক দূরত্ব মানছে না।

Top