Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জ্বিলক্বদ ১৪৪১

বালাগঞ্জে ইমাম-মোয়াজ্জিনদের খাদ্য সামগ্রী উপহার দিলো ‘ছাইম উল্যা স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্ট’

 প্রকাশিত: ১৩, মে - ২০২০ - ০৫:৩৩:২০ PM

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবকালে ইমাম-মোয়াজ্জিনের পাশে দাঁড়িয়েছে বালাগঞ্জ ইউনিয়নের গোপকানু গ্রামের হিতৈষী ব্যক্তি প্রয়াত হাজী মো. ছাইম উল্যার নামে নামকরণ করা ‘হাজী মো. ছাইম উল্যা স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্ট’।

আর্ত মানবতার ব্রত নিয়ে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত হাজী মো. ছাইম উল্যার সুযোগ্য উত্তরসূরী মো. আব্দুল কদ্দুছ, আব্দুল হাই খোকন ও আব্দুল অদুদ সুমনের অর্থায়নে বালাগঞ্জ ইউনিয়নের ৬৬টি মসজিদের ইমাম-মোয়াজ্জিনের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেয়া হয়েছে।

১৩মে বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপহার সামগ্রী প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা সৈয়দ আলী আছগর, বালাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুনিম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তুহিন মুনসুর, সাপ্তাহিক কুশিয়ারার কূল’র প্রকাশক হুসাইন আহমদ, সাংবাদিক শামীম আহমদ, মো. আব্দুস শহিদ, এ এস রায়হান, ইউপি সদস্য আব্দুস শহিদ দুলাল, ট্রাস্টি পরিবারের সদস্য আহমদ আলী, সমাজকর্মী আশরাফুল ইসলাম ও আখতারুজ্জামান রাসেল প্রমুখ।

খাদ্য সামগ্রী প্রদানকালে মোস্তাকুর রহমান মফুর বলেন- এই দুঃসময়ে হাজী মো. ছাইম উল্যা স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্ট ইমাম-মোয়াজ্জিনদেরকে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেয়ার বিষয়টি প্রশংসার দাবি রাখে। বিগত দিনেও আমরা দেখেছি এই ট্রাস্ট অসহায় মানুষের কল্যাণে সহায়তার হাত প্রসারিত করেছে। আমরা আশাবাদি তাদের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।

হাজী মো. ছাইম উল্যার জীবনী স্মৃতিচারণ করে তিনি আরো বলেন, জীবদ্দশায় তিনি সমাজ উন্নয়নে কাজ করেছেন। দেশের যে কোনো সংকটকালে তিনি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, হত দরিদ্র ও অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন।

এদিকে আনুষ্ঠানিকভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেষে বালাগঞ্জ সদরস্থ নবীনগর জামে মসজিদ ও বালাগঞ্জ ডিএন সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মসজিদের ইমামের হাতে খাদ্য উপহার পৌঁছে দেন বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর।

উল্লেখ্য, এর আগে ৮ এপ্রিল হাজী মো. ছাইম উল্যা স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে বালাগঞ্জ ইউনিয়নের আড়াই শতাধিক পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেয়া হয়েছিল।

[এখান থেকে কোনো নিউজ বা ছবি কপি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ, যা কপিরাইট আইনে দন্ডনীয় অপরাধ]

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top