Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জুমাদিউস-সানি ১৪৪১

সুনামগঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয়: আনন্দে কবিতা লিখলেন এম এ মান্নান

 প্রকাশিত: ৩০, ডিসেম্বর - ২০১৯ - ০৭:৩০:১৭ PM

সুনামগঞ্জ হাওরে বিশ্ববিদ্যালয়, আনন্দে কবিতা লিখলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী

কূল ডেস্ক : সোমবারের মন্ত্রীসভার বৈঠকে সুনামগঞ্জে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মন্ত্রীসভার বৈঠকেই একটি কবিতা লিখেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী ও সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এমএ মান্নান এমপি।

এই কবিতাটিই তার জীবনের প্রথম স্বরচিত কবিতা।

কবিতায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

দশ লাইনের কবিতায় কোনো শিরোনাম না দিলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উৎসর্গ করে হাওর-ভাটির পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।

অন্ত্যমিল ছন্দে লেখা কবিতাটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

ডিসেম্বরের তিরিশ দুই হাজার উনিশ
হাওর বাংলার জন্য এল বড় শুভাশীষ

বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনা খুলিল দুয়ার
এল মোদের বিশ্ববিদ্যালয়, খুশির জোয়ার।

বয়ে গেল হাওর থেকে হাওরে অপার
কে রুখবে আমাদের আনন্দ এবার।

বঙ্গবন্ধু দিয়ে গেল স্বাধীনতা স্বভূমে
বঙ্গকন্যা আনে এবার সম্মান অসীমে।

ধন্য ধন্য শেখ হাসিনা তোমায় সালাম
হাওরবাসীর পক্ষে আমি দিয়ে গেলাম।

হাওরে বিশেষায়িত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদনের প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনার প্রতি আমার হাওরবাসীর পক্ষে এই খুশিতে আমি কেবিনেট সভায় বসেই একটি কবিতা লিখেছি। আমি কবিতার মানুষ নই। কিন্তু আনন্দে আমার জীবনের প্রথম কবিতাটি শেষ বয়সে এসে কেবিনেট সভায় বসে লিখলাম। আমাদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন ঘটিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। হাওরবাসীর পক্ষ থেকেই আমি কবিতায় তাকে শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা জানিয়েছি।

এ বিভাগের​ আরও খবর


Top