Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৫ রবি-উল-আউয়াল ১৪৪১

অবশেষে সিলেট আ.লীগ পেতে যাচ্ছে আধুনিক কার্যালয়

 প্রকাশিত: ০৬, নভেম্বর - ২০১৯ - ০২:২৩:৫০ PM - Revised Edition: 30th April 2019

ছবি প্রতিকি

 

কূল ডেস্ক :: সিলেটে আওয়ামী লীগের কোনো নিজস্ব কার্যালয় নেই। দীর্ঘদিন ধরে নেতাদের বাসায় দলের সভা হয়ে আসছিল। গেল বছর নগরীর সোবহানীঘাট চালিবন্দর এলাকাস্থ ইব্রাহিম স্মৃতি সংসদকে নিজেদের কার্যালয় করেছে আওয়ামী লীগ। বর্তমানে সেখানেই চলছে দলটির রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড।

তবে অবশেষে সিলেটে স্থায়ী কার্যালয় পাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে আওয়ামী লীগের জন্য। সিলেট জেলা পরিষদের একটি জায়গা দলের কার্যালয়ের জন্য লিজ নিতে চায় আওয়ামী লীগ। তবে জায়গাটি কোথায়, তা আপাতত ‘গোপনই’ রাখতে চাইছেন সংশ্লিষ্টরা।

কার্যালয় বিষয়ক এসব তথ্য জানিয়েছেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট লুৎফুর রহমান; যিনি একইসাথে সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানও।

এডভোকেট লুৎফুর রহমান বলেন, ‘নেত্রী (শেখ হাসিনা) বলেছিলেন, জেলা পরিষদের কোনো জায়গা যদি থাকে, যেখানে কার্যালয় করা যাবে, তাহলে তাকে জানাতে। তিনি স্থানীয় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীকে বলে সেই জায়গা দল বা নিজের নামে লিজ নিয়ে নেবেন, যাতে সিলেটে দলের কার্যালয় করা যায়।’

তিনি বলেন, ‘জেলা পরিষদের একটি জায়গা পেয়েছি, যেখানে সুন্দরভাবে দলের কার্যালয় করা যাবে।’

তবে জায়গাটি কোথায়, তা বলতে রাজি হননি আওয়ামী লীগের এই প্রবীণ নেতা, ‘জায়গাটি মূল্যবান। অনেকেই এটি নেওয়ার চেষ্টা করছেন। তাই এখনই এ বিষয়ে বলতে চাই না।’

এদিকে, দলের কার্যালয়ের এই জায়গা নিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলতে আগামী সপ্তাহে ঢাকায় যাচ্ছেন লুৎফুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘যে জায়গা পেয়েছি, সে জায়গা দাগ নাম্বার, খতিয়ান নাম্বার সব নিয়ে সামনের সপ্তাহে ঢাকা যাবো। সাথে কার্যালয়ের ভবনের একটি ড্রয়িংও নিয়ে যাবো।’

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের এই কার্যালয় হবে দুই তলা ভবন। ভবনের নিচ তলায় সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকদের কক্ষসহ কয়েকটি থাকবে। দু’তলায় বড় সম্মেলনকক্ষ রাখা হবে, যাতে একসাথে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের যেকোনো সভা আয়োজন করা যায়। কার্যালয়টি আধুনিক স্থাপত্য রীতিতে নির্মাণ করা হবে, যেখানে আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধা থাকবে।

প্রসঙ্গত, ইব্রাহিম স্মৃতি সংসদ বর্তমানে সিলেট আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয় হলেও দলটির রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড তথা সাংগঠনিক সভা হয় সিলেট জেলা পরিষদের সম্মেলনকক্ষে।

এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট লুৎফুর রহমান বলেন, ‘আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থাকায় সবাই এখানে আসেন, সভা হয়। আমি না থাকলে এখানে সভা হতো না।’

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৪ সালের ৭ আগস্ট নগরীর গুলশান সেন্টারে গ্রেনেড হামলায় নিহত হন মহানগর আওয়ামী লীগের তৎকালীন প্রচার সম্পাদক মো. ইব্রাহিম। তার স্মরণে হয় চালিবন্দরে ইব্রাহিম স্মৃতি সংসদ। এর উদ্বোধন করেছিলেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। গেল বছর (২০১৮) আওয়ামী লীগের কেন্দ্র থেকে সিলেটে দলের কার্যালয় করার তাগিদ দেওয়া হয়। এরই প্রেক্ষিতে ওই বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর ইব্রাহিম স্মৃতি সংসদকে নিজেদের অস্থায়ী কার্যালয় করে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ।

সৌজন্যে : সিলেটভিউ২৪ডটকম

Top