Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবি-উল-আউয়াল ১৪৪১

দুই আইনে সম্রাট-আরমানের ৬ মাসের কারাদণ্ড

 প্রকাশিত: ০৬, অক্টোবর - ২০১৯ - ১১:৩১:০০ PM - Revised Edition: 30th April 2019

 

ক্যাসিনোকাণ্ডে গ্রেফতার সদ্য বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী এনামুল হক আরমানকে ৬ মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ক্যাঙ্গারুর চামড়া রাখায় “সম্রাটকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ” ও “আরমানকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ” এই দুটি আইনে সাজা দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৬ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর কাকরাইলের ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে সম্রাটের কার্যালয়ে অভিযান শেষে এ কথা জানান র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

তিনি জানান, সম্রাটের কার্যালয়ের ভেতর চামড়া পাওয়া গেছে। যা বন্যপ্রাণী আইনে অপরাধ। অবৈধভাবে তিনি অস্ট্রেলিয়া থেকে নিয়ে আসেন চামড়া দুটি। এ কারণে তার বিরুদ্ধে ৬ মাসের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হচ্ছে।

এদিকে সম্রাটের সহযোগী ও সদ্য বহিস্কৃত যুবলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানকে মাদক আইনে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এর আগে ভোর ৫টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাম থেকে সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার জ‌্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, চলমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তারপর দুপুর দেড়টার দিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে সদ্য বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা সম্রাটকে কাকরাইলে তার কার্যালয় ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে নেয়া হয়।

সম্রাটকে আনার আগেই তার কার্যালয়ের সামনে ও আশপাশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর মতিঝিলের ক্লাবপাড়ায় র‌্যাবের অভিযানে অবৈধ ক্যাসিনো চলার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে আলোচনায় ছিলেন সম্রাট। সেদিন যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূইয়া গ্রেফতার হওয়ার পর সদলবলে কাকরাইলে সংগঠনের কার্যালয়ে অবস্থান নিয়ে রাতভর ছিলেন সম্রাট। এরপর থেকে আত্মগোপনে ছিলেন তিনি।

Top