Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৩ সফর​ ১৪৪১

শিরোনাম :
বাবার কোলে রেখে ঘুমন্ত তুহিনকে জবাই করে চাচারা || আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে “বঙ্গবীর মানব কল্যাণ সোসাইটি” || বালাগঞ্জে বড়ভাঙ্গা নদীতে মোবাইল কোর্টের অভিযান: ২ লক্ষাধিক টাকার জাল জব্দ || ঢাকায় আসবে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ || গ্যাস সংযোগ আর পাবেন না, আমরা সিলিন্ডারে যাচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী || ক্রিকেটে বাউন্ডারি সংখ্যায় জয় নির্ধারণের নিয়ম বাতিল || দিরাইয়ে শিশু হত্যা : নিহত শিশুর বাবাসহ পরিবারের ৩ জন জড়িত || বালাগঞ্জের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল ল‌তিফ'র দাফন সম্পন্ন || অটোরিকশায় চড়ে সড়ক পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতি || প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছেন আবরারের বাবা-মা ||

মান্নাদের ‘কফি হাউজ’ গান গেয়ে ভাইরাল রিকশাচালক (ভিডিও)

 প্রকাশিত: ০২, অক্টোবর - ২০১৯ - ১১:৫৬:৫৬ PM - Revised Edition: 30th April 2019

 

কূল ডেস্ক :: কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই, আজ আর নেই কোথায় হারিয়ে গেল সোনালী বিকেলগুলো সেই, আজ আর নেই। মাথায় ক্যাপ। হাত দুয়েক দূরে রাখা রিকশা। আলো-আঁধারিতে ভেসে আসছে গিটারের সুর। সঙ্গে একটা মায়াবী গলা-কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই। ঠিক মান্না দের মতো নয়। তবে কোথায় যেন মিলে যায়!

মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। গায়কের নাম জহুরুল ইসলাম। বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদরের বাঘবাটি গ্রামে। ঢাকায় থাকেন হাজারিবাগে।

বুধবার সকালে এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা হয় জহুরুলের। জানান, অভাবের কারণে এসএসসি পরীক্ষা দেয়া হয়নি। বাবা নেই। গ্রামে অসুস্থ মা।

জহুরুলের ভিডিও ধারণ করেছেন এস এম সুজা উদ্দিন নামের এক ফেইসবুক ব্যবহারকারী। গিটার বাজিয়েছেন নাজমুল হাসান নামের আরেকজন।

এই দুজনের সঙ্গে জহুরুলের দেখা হয় ধানমন্ডি আটে। সেখানে আলমাসের গলিতে বসে গানটি গান তিনি।

শুনে শুনে গাওয়া। রিকশা চালাতে চালাতে গাই। কখনো ফুটপাতে বসে গাই। এ এক আলাদা শান্তি ভাই, ফোনের ওপার থেকে ভেসে আসা কথা শুনতে শুনতে মনে হয় এ যেন নিখাদ এক শিল্পী,

শ্রীকান্ত আচার্য, কিশোর কুমার, লতা মঙ্গেশকর, সুবীর নন্দী, আবদুল হাদী স্যারদের গান আমি ফলো করি।

জহুরুলের গাওয়া গানটিকে বাংলা সংগীত জগতে একটি কালজয়ী গান বলা হয়। গানটির সুর করেন কলকাতার কিংবদন্তি সুরকার সুপর্ণকান্তি ঘোষ। ‘সে আমার ছোট বোন’, ‘ও মালিক সারা জীবন কাঁদালে আমায়’ গানেরও সুর করেছেন তিনি। তার সুরে ৫০টির মতো গান গেয়েছেন মান্না দে।

২০১৫ সালে বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ‘কফি হাউজ’ গানের ইতিহাস বলেন সুপর্ণকান্তি, ‘‘৮৩ সালে গৌরী কাকা (গৌরী প্রসন্ন মজুমদার) বিকেলবেলা এসেছেন। আমি বললাম, ‘পারো না আড্ডা নিয়ে একটা গান লিখতে।’ তিনি বললেন, ‘আড্ডা নিয়ে গান? ভালো বলেছিস তো!’ সঙ্গে সঙ্গে বিড়বিড় করলেন, ‘কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই।’ তারপর তো ইতিহাস।’’

মান্নাদে গানটা শুনেই সুপর্ণকান্তিকে বলেন, ‘আমি তো এটা গাইবোই। দেখো, এটা সুপারহিট হবে।’

বাংলাদেশের জহুরুল এসব গল্প জানেন না। কিন্তু শুনেছেন গৌরী প্রসন্নর নাম। ঠিকই জানেন এই গানের লেখক তিনি!

‘গৌরী প্রসন্নের লেখা আমাকে খুব টানে। আমার তো গান শেখার ইচ্ছা ছিল, অভাবের কারণে পারিনি। মায়ের অনেক দিন ধরে লিভারের সমস্যা। বোনকে বিয়ে দিয়েছি। আয়ের মাধ্যম শুধু এই রিকশা। এই গানের কারণেই অভাব আমাকে ভাবায় না জানান জহুরুল।

 

 

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top