Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৩ সফর​ ১৪৪১

শিরোনাম :
অভাবনীয় ঘটনা : নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে একটি ভোটও পাননি আলম! || বাবার কোলে রেখে ঘুমন্ত তুহিনকে জবাই করে চাচারা || আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে “বঙ্গবীর মানব কল্যাণ সোসাইটি” || বালাগঞ্জে বড়ভাঙ্গা নদীতে মোবাইল কোর্টের অভিযান: ২ লক্ষাধিক টাকার জাল জব্দ || ঢাকায় আসবে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ || গ্যাস সংযোগ আর পাবেন না, আমরা সিলিন্ডারে যাচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী || ক্রিকেটে বাউন্ডারি সংখ্যায় জয় নির্ধারণের নিয়ম বাতিল || দিরাইয়ে শিশু হত্যা : নিহত শিশুর বাবাসহ পরিবারের ৩ জন জড়িত || বালাগঞ্জের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল ল‌তিফ'র দাফন সম্পন্ন || অটোরিকশায় চড়ে সড়ক পরিদর্শনে রাষ্ট্রপতি ||

বালাগঞ্জে ১টি স্কুলে ৬ বছর যাবৎ ইসলাম শিক্ষা পড়াচ্ছে হিন্দু শিক্ষক

 প্রকাশিত: ১৭, সেপ্টেম্বর - ২০১৯ - ১২:২২:০২ AM - Revised Edition: 30th April 2019

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বালাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বির্ত্বনীয়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘ ৬ বছর থেকে কোন মুসলিম শিক্ষক না থাকায় ইসলাম ধর্ম শিক্ষা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন মুসলিম অধ্যুষিত এলাকার শিক্ষার্থীরা।

বিদ্যালয়ে ২১০ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৮৪ মুসলিম ও ২৬ জন হিন্দু শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করছে। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাংবাদিক আবুল কাশেম অফিক জানান বিগত ২০১৩ সালে বেদানা বেগম নামের একজন সহকারী শিক্ষিকা প্রায় তিন মাসের জন্য বিদ্যালয়ের শিক্ষকতা করে অন্যত্র বদলি হয়ে যাওয়ার পর থেকে আর কোন মুসলিম শিক্ষক এই বিদ্যালয়ের আসেন নাই। বিদ্যালয়ের ৫ জন শিক্ষক শিক্ষিকার মধ্যে ৫ জন'ই হিন্দু। তিনি আরো জানান কমিটির দায়িত্বভার গ্রহনের পরপরই মুসলিম শিক্ষকের জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসের বরাবরের একটি দরখাস্ত দেন এবং তৎকালীন উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও মহোদয় কে অনুলিপিসহ সরাসরি অবহিত করে আলোচনা করেছেন। তারা শিক্ষকের ব্যাবস্তার আশ্বাস দিলেও এখন পর্যন্ত কোন ব্যাবস্তা হয়নি। এমনকি বারবার যোগাযোগ করা হলেও শিক্ষকের ব্যাবস্তা হচ্ছে হবে বলে কালক্ষেপণ করেন।

এই বিষয়ে বর্তমান উলজেলা চেয়ারম্যানকেও মৌখিকভাবে অবহিত করেছেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা কল্পনা দাস বলেন মুসলিম কোন শিক্ষক না থাকায় আমরা বই দেখে দেখে ইসলাম ধর্মের বাংলা অংশ পড়াচ্ছি। আরবি আমাদের জানা না থাকায় পড়াতে পারছিনা। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রকিব ভূইয়া সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন- বিষয়টি আমি দেখবো।

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top