Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মহররম ১৪৪১

শিরোনাম :
ছাত্রলীগে পদ পেতে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা দিতে হবে || ওসমানীনগরে ডিপ্লোমা এন্ড রুরাল ম্যাডিকেল এসোসিয়েশনের মতবিনিময় || ওসমানীনগরে পূজা মন্ডপ কমিটি কর্তৃক ইউএনও বরাবর স্বারকলিপি প্রদান || অদ্ভুত কাহিনি; এক গ্রামের সকল মানুষ ও পশু দৃষ্টিহীন! || জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির যতো অন্যায় || যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে অভিযান, আটক ১৪২  || আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে ১২টি উপকমিটি গঠন || জ্ঞান হারানোর আগে মিন্নির সাথে নয়, রিকশা চালকের সাথে কথা হয় রিফাতের || বালাগঞ্জের বির্ত্তনীয়া প্রাইমারী স্কুলে টিফিন বক্স বিতরণ || যুবলীগ চেয়ারম্যানের বিবৃতি : সমালোচনাকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে যুবলীগ ||

বালাগঞ্জে কুশিয়ারাতে ভাসছে কোরবানির পশুর চামড়া

 প্রকাশিত: ১৩, অগাস্ট - ২০১৯ - ০৭:৩৪:০২ PM - Revised Edition: 30th April 2019

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :: প্রতিবারের মতো এবারো ঈদুল আজহায় বালাগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম ও বাসা থেকে কয়েকটি মাদ্রাসা প্রায় ৫ শতাধিক পশুর চামড়া সংগ্রহ করেছিল। এ চামড়া বিক্রি করে যে টাকা আয় হতো তা দিয়ে মাদ্রাসার গরীব শিক্ষার্থীদের খরচ বহন করা হত। এবার সেই মূল্যবান চামড়া বালাগঞ্জ কুশিয়ারা নদীতে ভাসছে।

অন্যান্য বছরের ন্যায় চামড়া সংগ্রহ করলেও ন্যায্য দাম না পাওয়ায় একদিন অপেক্ষা করে গত ১৩ আগস্ট মঙ্গলবার সকালে দুর্গন্ধে এলাকার পরিবেশ নষ্ট হওয়ার ভয়ে সেগুলো কুশিয়ারা নদীতে ফেলে দিয়েছেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে উপজেলার জামেয়া ইসলামিয়া ফিরোজাবাগ বালাগঞ্জ মাদ্রাসা ১১৯টি, বালাগঞ্জ মহিলা মাদ্রাসা প্রায় ১০০টি, তিলকচানপুর-আদিত্যপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা ৩৪টি, নতুন সুনামপুর মাদ্রাসা ৭০টি ও দক্ষিণ গৌরীপুর মাদ্রাসায় ২৭টি চামড়া নদীতে ফেলে দিয়েছে। এছাড়া আরও কয়েটি প্রতিষ্ঠানের একই গতি বলে জানা গেছে।

মাদ্রসা কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞাসা করে জানা যায়, বিগত বছরগুলোতে ব্যবসায়ীরা মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে চামড়া ক্রয়ের আগ্রহ দেখিয়েছে, কিন্তু এইবার কর্তৃপক্ষ নিজে যোগাযোগ করেও বিক্রয় করতে পারেনি। তারা বলেন- এক ক্রেতা দুপুরের দিকে প্রতিটি চামড়া মাত্র ৫০ টাকা দাম করেছিল, কিন্তু বিকেলে তাকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি, শেষ পর্যন্ত চামড়া বিক্রয় করা সম্ভব হয়নি।

চামড়ার দাম এত কম কেন? জানতে চাইলে সিলেটের চামড়া ব্যবসায়ীরা অজুহাত দেখান তারা গতবারের দেয়া চামড়ার টাকা এখনো ঢাকা থেকে পাননি। সেগুলো বকেয়া থাকায় এবার তারা দাম দিয়ে চামড়া কিনতে পারছেন না। এমনকি এই টাকায় তারা যে চামড়াগুলো কিনছেন সেগুলোও বিক্রি করা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন।

 

 

 

এ বিভাগের​ আরও খবর


সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top