Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

শিরোনাম :
‘ভিখারি’ ও ‘টপ টেন ক্রিমিনাল’ নিযে চলছে ভারত-পাকিস্তান ‘ইন্টারনেট যুদ্ধ’ || বালাগঞ্জ উস্তার-রিজিয়া কিশলয় কেজি স্কুলের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি || বালাগঞ্জে কাশ্মীর ইস্যুতে লতিফিয়া ফাউন্ডেশনে বিক্ষোভ মিছিল || সিলেট মহানগর আ.লীগের সেক্রেটারীর ৩৭ বছর আগের ছবি ভাইরাল! || কবি শামসুর রাহমানের মৃত্যুবার্ষিকী আজ || ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে উন্মোচন হলো মোবাইল অ্যাপ ‘স্টপ ডেঙ্গু’ || নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালনের শিক্ষা দিতে হবে : শফিক চৌধুরী || জাতীয় শোক দিবসে শেফিল্ডে আ.লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল || বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশ দলে ওসমানীনগরের মতিনসহ সিলেটী ৫ খেলোয়াড় || জাফলং ও বিছানাকান্দি ঘুরা হলো, বাড়ি ফেরা হলো না ||

গরু জবাইর ছুরি পেটে ঢুকে শিশুর মৃত্যু

 প্রকাশিত: ১২, অগাস্ট - ২০১৯ - ০৭:৪৩:২০ PM - Revised Edition: 30th April 2019

কূল ডেস্ক :: কোরবানির গরু জবাই করার সময় অসাবধানবশত কসাইয়ের হাত থেকে ছুরি ছুটে গিয়ে পেটে ঢুকে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টার সময় সদর মাদারীপুর উপজেলার দুধখালী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুর নাম মৌমিতা আক্তার (১০)। সে দুধখালী ইউনিয়নের উত্তর দুধখালী বড়কান্দি গ্রামের আনোয়ার বেপারীর মেয়ে।

সে দুধখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল। মৌমিতার মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ১০টার সময় বাড়ির লোকজন উঠানে গরু জবাই করতে শুরু করে। এ সময় কয়েকজন শিশু দাঁড়িয়ে তা দেখছিল।

এক পর্যায়ে গরু নাড়াচাড়া করলে কসাইয়ের হাতে থাকা ছুরি ছুটে গিয়ে মৌমিতার পেটে ঢুকে যায়। সঙ্গে সঙ্গে মাটিয়ে পড়ে যায় মৌমিতা।

পরে বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

দুধখালী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন বেপারী জানান, বাড়ির লোকজন গরু জবাই করছিল। রগ কাটার সময় গরুটি দাপাদাপি করছিল। এ সময় কসাইয়ের হাতে থাকা ছোড়া ছুটে গিয়ে মৌমিতার পেটে ঢুকে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই শিশুটির।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহতের পরিবার থেকেও কোনো অভিযোগ দেয়নি। তবে বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) শশাঙ্ক ঘোষ বলেন, মৌমিতার পেটের ভেতর থেকে শুরু করে আঘাত ফুসফুস পর্যন্ত লেগেছে। এটি বড় ধরনের আঘাত। হাসপাতালে আনার অনেক আগেই ওই শিশুটির মৃত্যু হয়। পরে নিহতের স্বজনরা মৌমিতার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে গেছে।

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top