Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

শিরোনাম :
‘ভিখারি’ ও ‘টপ টেন ক্রিমিনাল’ নিযে চলছে ভারত-পাকিস্তান ‘ইন্টারনেট যুদ্ধ’ || বালাগঞ্জ উস্তার-রিজিয়া কিশলয় কেজি স্কুলের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি || বালাগঞ্জে কাশ্মীর ইস্যুতে লতিফিয়া ফাউন্ডেশনে বিক্ষোভ মিছিল || সিলেট মহানগর আ.লীগের সেক্রেটারীর ৩৭ বছর আগের ছবি ভাইরাল! || কবি শামসুর রাহমানের মৃত্যুবার্ষিকী আজ || ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে উন্মোচন হলো মোবাইল অ্যাপ ‘স্টপ ডেঙ্গু’ || নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালনের শিক্ষা দিতে হবে : শফিক চৌধুরী || জাতীয় শোক দিবসে শেফিল্ডে আ.লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল || বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশ দলে ওসমানীনগরের মতিনসহ সিলেটী ৫ খেলোয়াড় || জাফলং ও বিছানাকান্দি ঘুরা হলো, বাড়ি ফেরা হলো না ||

চলন্ত গাড়িতে ফোনে কথা বললে চালকে আটকের নির্দেশ

 প্রকাশিত: ০৪, অগাস্ট - ২০১৯ - ০৫:১৯:৪৫ PM - Revised Edition: 30th April 2019

 
 

কূল ডেস্ক :: গাড়ি চালানোর সময় যদি কোনো চালক মোবাইল ফোনে কথা বলেন, তা হলে ওই চালককে আটক ও গাড়ি জব্দ করার জন্য ট্রাফিক বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

রোববার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে পথচারীর করণীয় শীর্ষক সচেতনতামূলক কর্মসূচি ক্যাশ কার্ডের মাধ্যমে ট্রাফিক প্রসিকিউশনের জরিমানা আদায় ব্যবস্থার উদ্বোধনকালে ডিএমপি কমিশনার এ কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, চলন্ত গাড়িতে চালক কথা বললে ড্রাইভিংয়ে মনোযোগ থাকে না। এ কারণেই অনেক প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

সড়কের বাম লেন খালি রাখার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সড়কের বাম লেন খালি রাখবেন। কেউ বাম লেন দখল করে দাঁড়িয়ে থাকলে তাদের গাড়িও রেকারিংয়ে নিতে ট্রাফিক বিভাগকে নির্দেশ দেন কমিশনার।

তিনি বলেন, এখন থেকে ট্রাফিক প্রসিকিউশনের জরিমানার টাকার জন্য চালক ও গাড়ির কাগজপত্র জব্দ করা হবে না। জরিমানার টাকা এখন থেকে অন স্পটে যেকোনো ব্যাংকের ডেবিট, ক্রেডিট, ভিসা, ক্যাশ, বিকাশ, রকেট ও অন্যান্য কার্ড ব্যবহার করে পরিশোধ করতে পারবেন।

তিনি বলেন, এভাবে টাকা পরিশোধের ফলে চালক বা মালিক হয়রানি থেকে মুক্ত থাকবে। আগে এই টাকা আদায়কালে সীমাহীন অনিয়ম ছিল, দুর্নীতি হতো। দুই হাজার টাকা নেয়া হলেও অল্প টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করা হতো। এখন সেটি আর হবে না। এর আগে ইউসিবিএলের মাধ্যমে টাকা জমা দিতে হতো।

যেসব পথচারী হেডফোন কিংবা মোবাইল ফোন কানে ধরে রাস্তা পার হয়, বাচ্চা নিয়ে রোড ডিভাইডার পার হয়, রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে হাত দিয়ে ইশারায় গাড়ি থামানোর সংকেত দেয়, জেব্রাক্রসিং ব্যবহার করেন না; তাদের বিরুদ্ধেও এখন থেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।


সৌজন্যে : যুগান্তর

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top