Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মহররম ১৪৪১

শিরোনাম :
ছাত্রলীগে পদ পেতে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা দিতে হবে || ওসমানীনগরে ডিপ্লোমা এন্ড রুরাল ম্যাডিকেল এসোসিয়েশনের মতবিনিময় || ওসমানীনগরে পূজা মন্ডপ কমিটি কর্তৃক ইউএনও বরাবর স্বারকলিপি প্রদান || অদ্ভুত কাহিনি; এক গ্রামের সকল মানুষ ও পশু দৃষ্টিহীন! || জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির যতো অন্যায় || যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে অভিযান, আটক ১৪২  || আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে ১২টি উপকমিটি গঠন || জ্ঞান হারানোর আগে মিন্নির সাথে নয়, রিকশা চালকের সাথে কথা হয় রিফাতের || বালাগঞ্জের বির্ত্তনীয়া প্রাইমারী স্কুলে টিফিন বক্স বিতরণ || যুবলীগ চেয়ারম্যানের বিবৃতি : সমালোচনাকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে যুবলীগ ||

বালাগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে শুকনা খাবার ও ত্রান বিতরন শুরু!

 প্রকাশিত: ১৬, জুলাই - ২০১৯ - ০৯:২১:৩৪ PM - Revised Edition: 30th April 2019

রজত দাস ভুলন, বালাগঞ্জ :: বালাগঞ্জ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অবনতি রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে পূর্বপৈলনপুরের হামছাপুরে ও গালিপুরে ১শ ২৫ পরিবারের মধ্য শুকনাখাবার ও এান সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। ত্রান বিতরণের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নাজমুস সাকিব নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অবনতি অপরবর্তিত রয়েছে।

বালাগঞ্জে আকস্মিক বন্যায় ৬টি ইউনিয়ন প্লাবিত যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যাহত। ৩০ হাজার লোকসহ ১৩শ পরিবার পানি বন্দি। উপজেলা প্রশাসন থেকে কন্টোল রুম খোলা হয়েছে।

টানা বৃষ্টিপাতের কারণে কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে। এরফলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। পানিবন্দী হয়ে সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলায় ৬টি ইউনিয়নই নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে মানুষ।

সরেজমিনে দেখা যায়, গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণে কুশিয়ারা নদীর তীরঘেঁষা বালাগঞ্জ সদরের স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সের সম্মুখের রাস্তা, বাজারের ভেতরের রাস্তা, বালাগঞ্জ সরকারি ডিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ, তয়রুন নেছা বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ভেতর, প্রবেশের রাস্তা ও মাঠ, উপজেলা প্রশাসনের মূল সড়ক ও উপজেলা প্রশাসনের মাঠ পানিতে ডুবে গেছে এবং উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের নিচতলার অফিসগুলোর ভেতরে পানি প্রবেশ করেছে।

শেরপুর থেকে বালাগঞ্জ বাজারের কুশিয়ারা ডাইকের ভাঙ্গনে হামছাপুর, জালালপুর, গালিমপুর গ্রামের বন্যা প্রতিরোধক বাধেঁর ভাটপাড়া, পৈলনপুর, ফাজিলপুর, পূর্ব ইছাপুর এ সকল স্থান ডাইকের বাধ ভেঙে পানি ভিতরে প্রবেশ করছে। সেই সঙ্গে বালাগঞ্জের সাথে পূর্ব পৈলনপুরের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

একি সাথে ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে বালাগঞ্জ রোডের ডাইকের বাজার সংলগ্ন রাস্তা ফাটল দেখা দেয়ায় বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। উপজেলার ৯টি প্রাইমারি ও ৪টি মাধ্যমিক স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ৩টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।  ইতিমধ্যে গালিমপুর হাইস্কুল ও পূর্ব পৈলনপুর হাইস্কুলে বন্যার্ত মানুষজন আশ্রয় নিয়েছেন এবং পূর্ব গ্রৌরীপুর বিকেএম হাই স্কুলে মানুষ আসতে শুরু করেছেন।

এপর্যন্ত ৫টন চাল ও ১০০ প্যাকেট শুকনো খাবার এসেছে। এদিকে গত ১৬জুলাই বিকালে উপজেলার পূর্ব পৈলনপুরে হামছাপুরে ও গালিমপুরে একশ পচিঁশ পরিবারের মধ্যে শুকনা খাবার ও ত্রান সামগ্রী বিতরন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী মোস্তাকুর রহমান মফুর। ত্রান বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন ইউএনও মোঃ নাজমুস সাকিব, পিআইও প্রীতিভুষন দাস, সমবায় কর্মকর্তা উৎপল চক্রবত্তী, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মতিন, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, শিহাব আহমদ, ঝন্টু দাসসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top