Diclearation Shil No : 127/12
সিলেট, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জ্বিলক্বদ ১৪৪০

শিরোনাম :
জিয়াপুর আদর্শ সমাজ কল্যাণ সংস্থার আত্মপ্রকাশ! || হাসিনা-খালেদার পক্ষে তিন নেতার গিলাফ প্রদান! || বালাগঞ্জে মৎস্য সপ্তাহের সমাপনি অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরন সম্পন্ন! || বালাগঞ্জে অনলাইন প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন || ফেঞ্চুগঞ্জের ফটো সাংবাদিক কামাল বাঙ্গালী আর নেই || বালাগঞ্জে আ.লীগ নেতা মতিন চৌধুরীর ইন্তেকাল, জানাজা মঙ্গলবার || ২৮৩ কাউন্সিলরের সিংহভাগই জগদীশ-আজাদের গঠিত কমিটির সদস্য! || অজ্ঞান পার্টি’র খপ্পরে পড়ে বালাগঞ্জের পৈলনপুরের চেয়ারম্যান ‘আইসিইউ’তে || বালাগঞ্জের কলেজ ক্যম্পাস পরিস্কার করলো ছাত্রলীগ! || রফিকুল আলম উপজেলা পর্যায়ে টানা চারবার শ্রেষ্ট শিক্ষক নির্বাচিত ||

সরকারি চাকরিতে সোয়া তিন লাখ পদ শূন্য

 প্রকাশিত: ১১, ফেব্রুয়ারি - ২০১৯ - ০৭:০৫:৩২ AM - Revised Edition: 30th April 2019

কূল ডেস্ক :: সরকারি চাকরিতে সোয়া তিন লাখ পদ শূন্য আছে বলে সংসদকে অবহিত করেছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। 

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম (আনার) ও শামসুল হক টুকুর ভিন্ন ভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। 

প্রতিমন্ত্রী জানান, সরকারের বিভিন্ন অফিস ও মন্ত্রণালয়ে ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৭৪৬টি পদ শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ৩ হাজার  ৮৫৪টি পদ শূন্য রয়েছে। শূন্য পদ পূরণের লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

ফরহাদ হোসেন আরও জানান, ৩৭তম বিসিএস এর মাধ্যমে বিভিন্ন ক্যাডারের ১ হাজার ২৮৯টি পদে নিয়োগের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সুপারিশ করেছে। সুপারিশকৃত প্রার্থীদের প্রাক-চাকরির বৃত্তান্ত যাচাই করার জন্য যথাযথ এজেন্সিকে অনুরোধ করা হয়েছে। প্রাক-চাকরি যাচাই প্রতিবেদন, মুক্তিযোদ্ধা সনদ যাচাই ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়ার পর চূড়ান্ত নিয়োগ দেয়া হবে।

তিনি বলেন, ৩৮, ৩৯, ৪০তম বিসিএস এর মাধ্যমে যথাক্রমে ২০২৪, ৪৭৯২ ও ১৯০৩ জন মোট ৮ হাজার ৭১৯টি বিভিন্ন ক্যাডারের শূন্য পদে নিয়োগের কাজ চলছে।

প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, সরকারি অফিসগুলোতে শূন্য পদে লোক নিয়োগ একটি চলমান প্রক্রিয়া। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ এবং এর অধীন সংস্থাসমূহের চাহিদার প্রেক্ষিতে সরকারি কর্ম কমিশনের মাধ্যমে ১০ থেকে ১২ গ্রেডে (দ্বিতীয় শ্রেণি) শূন্য পদে জনবল নিয়োগ করা হয়ে থাকে। ১৩ থেকে ২০ এর (তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণি) পদে স্ব স্ব
মন্ত্রণালয়/বিভাগ/সংস্থা নিয়োগ বিধি অনুযায়ী করে থাকে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ ধারাবাহিকভাবে সকল মন্ত্রণালয়/বিভাগের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে নতুন পদ সৃজনের সম্মতি প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে মন্ত্রণালয় বা বিভাগ নিয়োগ বিধি অনুযায়ী ওই পদে জনবল নিয়োগের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করে থাকে। আদালতের কার্যক্রম শেষ না হওয়া এবং পদোন্নতি যোগ্যপ্রার্থী না পাওয়ায় কিছু শূন্য পদ পূরণ করা যায় না।

কুশিয়ারার কূল/ইমন শাহ/১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ

Top